জেলা পরিষদ সদস্যার স্বামীর রহস্যজনক মৃত্যু

উত্তর দিনাজপুর, ৯ আগস্ট— উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের সদস্য মামনী পোদ্দারের স্বামী কিপা পোদ্দারের রহস্যজনক মৃত্যুকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে জেলা জুড়ে। আজ সকালে তাঁর মৃতদেহ উদ্ধার হয়। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার রাতে তিনি ইসলামপুরের মিলনপল্লির। এদিন সকালে হঠাতই গলায় গামছা বাঁধা অবস্থায় তাঁর মৃতদেহ দেখতে পান স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান উত্তর দিনাজপুরের পুলিশ সুপার শচীন মক্কর এবং তৃণমূলের নেতা তথা প্রাক্তন মন্ত্রী গোলাম রব্বানি। মৃতদেহটি উদ্ধার করে পাঠানো হয় ময়নাতদন্তের জন্য।
মৃত ব্যক্তির স্ত্রী তথা জেলা পরিষদের সদস্য মামনী প্রসাদ বলেন, এটি সম্পূর্ণরূপে একটি খুনের ঘটনা। রাজনৈতিক কারণে তাঁর স্বামীর অনেক শত্রু রয়েছে। তাদের কেউ এই খুনকান্ডের সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। তদন্ত হলেই প্রকৃত রহস্য সামনে আসবে।
তৃণমূল নেতা গোলাম রব্বানি বলেন, কিপা পোদ্দারকে যে খুন করা হয়েছে তা দেখেই বোঝা যাচ্ছে। পুলিশকে বলা হয়েছে ঘটনার তদন্ত করার জন্য। উত্তর দিনাজপুর জেলা পুলিশ সুপার শচীন মক্কর জানান, মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।