একই পরিবারের তিনজনকে কোপানোর অভিযোগ

মালদা, ২৩ জুলাই—সালিশি সভায় ছাগল চোরকে শাস্তি দেওয়ার কথা বলার অপরাধে বাড়িতে ঢুকে একই পরিবারের তিনজনকে কোপানোর অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী চার জনের বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে ইংরেজবাজার শহরের কূলদীপ মিশ্র কলোনি এলাকায়। আহত তিনজনকেই চিকিৎসার জন্য ভরতি করা হয়েছে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে। আহতরা হলেন স্বপন দাস( ৪৭), তাঁর স্ত্রী জ্যোৎস্না দাস( ৪০) এবং ছেলে সুশান্ত দাস(২১)। জানা গিয়েছে, গত কয়েকদিন ধরে এলাকায় চুরির ঘটনা বেড়েই চলেছে। কারো বাড়ি থেকে মোবাইল, কারো বাড়ি থেকে ছাগল আবার কারো বাড়ি থেকে টোটো চুরির মতো ঘটনা ঘটে চলেছে। রবিবার এলাকায় এক ব্যক্তির বাড়ি ছাগল চুরি হয়ে যায়। এই ঘটনায় স্থানীয় বাসিন্দারা ভূপেন দাস নামে একজনকে হাতেনাতে ধরেও ফলে। সোমবার সন্ধ্যায় এলাকায় একটি সালিশি সভাও বসে। সেই সভাতে ধৃত ভূপেন দাসকে শাস্তি দেওয়ার দাবি তোলেন স্বপন দাস। আহত স্বপনবাবুর অভিযোগ, এরপরেই ভূপেন দাসের নেতৃত্বে চারজন তাঁদের বাড়িতে চড়াও হয়। তিনি ছাড়াও তাঁর স্ত্রী এবং ছেলেকেও মারধর করে হামলাকারীরা। তাঁদের চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে এলে পালিয়ে যায় সকলেই। স্থানীয় বাসিন্দারা আহতদের উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করেন। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ইংরেজবাজার থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।