ডোমকল পুরসভার পদ থেকে অনাস্থায় অপসারিত সৌমিক হোসেন

মুর্শিদাবাদ, ২৫ জুলাই — দীর্ঘ দড়ি টানাটানির পর অবশেষে ডোমকল পুরসভার চেয়ারম্যান পদ খোয়াতে হল সৌমিক হোসেনকে । ভাইস চেয়ারম্যানের ডাকা তলবি সভায় বৃহস্পতিবার ভোটাভুটিতে গর হাজির ছিলেন সৌমিক হোসেন। ১৫-০ ভোটের ব্যবধানে সৌমিক বিরোধী তৃণমূল সদস্যরা জয়ী হন । আপাতত ভাইস চেয়ারম্যান প্রদীপ চাকিকে চেয়ারম্যানের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। পরে সর্বসম্মতিক্রমে ও দলীয় সিদ্ধান্তে চেয়ারম্যান ঠিক করা হবে বলেই জানানো হয়েছে।
২০১৭ সালের পুরসভার নির্বাচনে ২১ আসনবিশিষ্ট ডোমকল পুরসভায় ১৮টি আসনেই তৃণমূল প্রার্থীরা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়লাভ করেন। পরবর্তীকালে বাকি তিনজন সদস্যও শাসক শিবিরে নাম লেখানোর ফলে বিরোধীশূন্য হয়ে পড়ে এই পুরসভা। সম্প্রতি পুরপ্রধান সৌমিক হোসেনকে অন্যান্য কাউন্সিলারদের অন্ধকারে রেখেই নানারকম সিদ্ধান্ত নিতে থাকেন বলে অভিযোগ। মোটা টাকার বিনিময়ে নিজের পছন্দ মতো সংস্থাকে দিয়ে ঠিকাদারি কাজ করাতে থাকেন। এনিয়ে ক্ষোভ জমছিল অনেকের মধ্যে। তাঁর কাজে অতিষ্ঠ হয়েই ১৩ জন কাউন্সিলার চলতি মাসের ১৩ তারিখে অনাস্থা ডাকেন। পরে সেই অনাস্থাপত্রে স্বাক্ষর করেন আরো তিনজন। একাধিকবার তাঁকে নিজের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রমাণের জন্য বলা হলেও তিনি তাতে কর্ণপাত করেননি বলে অভিযোগ। ফলে বৃহস্পতিবার অনাস্থা সভা ডাকেন বিক্ষুব্ধ কাউন্সিলাররা। সেই সভাতে পুরপ্রধান হাজির হননি। উপস্থিত ১৫ জন সদস্য তাঁর বিরুদ্ধে ভোট দেওয়ায় নিজের পদ থেকে অপসারিত হন পুরপ্রধান সৌমিক হোসেন।