ফরাক্কায় ভাঙনের আতঙ্ক

মিলন সরকার , ফরাক্কা, ২৫ জুলাই — ফরাক্কা ব্লকের মহেশপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের খোদাবন্দপুর সাকোপাড়া এলাকায় গঙ্গার ভাঙনে আতঙ্ক ছড়িয়েছে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে। নদীপাড়ের বেশ কিছু বাড়ি এবং রাস্তায় ফাটল দেখা দিয়েছে। যে কোনো মুহূর্তে বাড়িগুলি তলিয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কায় ভুগছেন এলাকার বহু মানুষ।
নদীভাঙন ফরাক্কায় নতুন কোনো বিষয় নয়। প্রায় প্রতি বছরেই বর্ষার মরশুমে পাড় ভাঙতে শুরু করে। গত কয়েক দশকে প্রচুর কৃষিজমি এবং জনবসতি তলিয়ে গিয়েছে নদীগর্ভে। এবারেও বর্ষার সময় গঙ্গার জল বাড়লেই ফরাক্কার হোসেনপুর, মহেশপুর, বেনিয়াগ্রামের বেশ কয়েকটি গ্রামে গঙ্গার ভাঙন দেখা দিয়েছে। নদীতে তলিয়ে গিয়েছে পাড়ের বহু অংশ। সবথেকে বেশি আতঙ্ক ছড়িয়েছে মহেশপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের খোদাবন্দপুর সাঁকোপাড়া এলাকায়। গঙ্গা নদী থেকে মাত্র দেড়শো থেকে দুইশো মিটার দূরে রয়েছে এই গ্রাম। বৃহস্পতিবার স্কাল থেকেই গ্রামের বাসিন্দারা দেখতে পান নদীর জল মাটির তলা দিয়ে পৌঁছে গিয়েছে অনেকটা দূরে। রাস্তায় নেমেছে ফাটল। এমনকি অনেকের আশঙ্কা নদী তলায় তলায় এসে বিস্তীর্ণ জনবসতি নিজের গর্ভে তলিয়ে নিয়ে যেতে পারে। এই আশঙ্কায় গ্রামবাসীদের রাতের ঘুম উড়েছে। নিরাপদ আশ্রয়ের খোঁজে অনেকেই বাড়িঘর ছেড়ে চলে জাচ্ছেন অন্যত্র। ফরাক্কার বিডিও রাজর্ষি চক্রবর্তী জানিয়েছেন, মহেশপুর এলাকার সমস্যার কথা তিনি শুনেছেন। বিষয়টির ওপর প্রশাসনের নজর রয়েছে।