তৃণমূল কিষান ক্ষেত মজুর সংগঠনের উদ্যোগে উত্তর দরিয়াপুর নয়াবস্তী গ্রামে খাদ্যসামগ্রী বিলি জোর কদমে

 মহসিন আলি – লকডাউনের  জেরে বিপাকে জনসাধারন  । কোনোরকমে সংসার চালানো মানুষগুলির কাছে এখন রোজকার  দুইবেলা খাবার জোগাড় করা দুরূহ হয়ে দাঁড়িয়েছে। অসহায় এই মানুষদের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে গ্রাম পঞ্চায়েত,সামাজিক সংগঠন ও বাক্তিগত উদ্যোগ । লকডাউনের ফলে গরীব মানুষরা যাতে কোনও অসুবিধার সম্মুখীন না হন, সেই কারণে সরকারের পাশাপাশি বিভিন্ন গণ সংগঠনের  উদ্যোগে পাড়ায় পাড়ায় চলছে খাদ্যসামগ্রী বিলির কাজ। ফলে খুশি গ্রামের  মানুষজন ।মঙ্গলবার কালিয়াচক ১ ব্লকের নওদা  অঞ্চলের নয়াবস্তি গ্রামে প্রায় ৫০ টি পরিবারকে  চাল,  আলু,ডাল ,পেয়াজ ও  সরষের তেল তুলে দেন অঞ্চল প্রধান এসারুদ্দিন সেখ রাজু , মালদা জেলা তৃণমূল কিষান ক্ষেত মজুর সংগঠনের জেলা সম্পাদক কুরবান সেখ  ,কালিয়াচক ১ ব্লক যুব তৃণমূল  সভাপতি  মোহাম্মদ সারিউল  ও স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্যগন । নয়াবস্তি গ্রামে  প্রায় ৫০০ পরিবারের  বসবাস। বেশির ভাগ মানুষ জম্মু ও কাশ্মিরে কাজ করে সংসার চালায় ।দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে বিপাকে পড়েছেন ওই গ্রামের  গরিব মানুষজন।  করোনা আতঙ্কে দেশ জুড়ে  লকডাউন শুরু হওয়ায় নয়াবস্তী গ্রামের মানুষদের রুজিরোজগারে টান পড়েছে।  অনেকের বাড়িতেই খাবারের সমস্যা দেখা দিয়েছে।  রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে সাধারণ মানুষের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার ব্যবস্থা করেছেন কিন্তু সরকারি সাহায্য দিয়েও অনেক পরিবারে সকলে স্বচ্ছন্দে খেয়েপড়ে থাকতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে গ্রামের কোনো মানুষ যাতে অভুক্ত না থাকেন, তার জন্য তৃণমূল  ক্ষেত মজুর সংগঠনের কর্তারা এগিয়ে  এসেছেন। তাঁরাই নিয়ম করে গ্রামে ঘুরে ঘুরে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করছেন । মালদা জেলা তৃণমূল কিষান ক্ষেত মজুর সংগঠনের জেলা সম্পাদক কুরবান সেখ বলেন ,আমরা দিদির অনুগত সৈনিক ।দিদির নির্দেশে আমরা বিভিন্ন এলাকায় গরিব  মানুষের পাশে দাড়িয়েছি । আগামীতেও আমরা দিদির সৈনিক হিসাবে কাজ করে যাব ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *