লো ভোল্টেজের প্রতিবাদে পথ অবরোধ

Malda :- গত তিনদিন ধরে চলছে লো ভোল্টেজ।   সমস্যা মেটাতে বিদ্যুৎ বন্টন কোম্পানি থেকে শুরু করে প্রশাসনকে জানানো হলেও কাজ হয়নি। প্রতিবাদে শুক্রবার সকাল সাড়ে আটটা থেকে মিলকি বাসস্ট্যান্ডে মালদা-মানিকচক রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় মিলকি গ্রাম পঞ্চায়েতের নাজিরপাড়া গ্রামের বাসিন্দারা। রাস্তার উপর বেঞ্চ পেতে রাখা হয় ও বাঁশ দিয়ে রাস্তা আটকে রাখা হয়। পাশাপাশি রাস্তার উপর টায়ারে আগুন জ্বালিয়ে দেখানো হয় বিক্ষোভ। এর জেরে মালদা-মানিকচক রাজ্য সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। ব্লক প্রশাসন ও মিলকি ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা করে অবরোধ তুলে দেয় এবং পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

 মিলকি গ্রাম পঞ্চায়েতের নাজিরপাড়া গ্রামে অন্তত এক হাজার পরিবারের বাস। স্থানীয়  বাসিন্দারা বলেন, গত সোমবার থেকে গোটা নাজিরপাড়া গ্রামে লোভোল্টেজ চলছে। এই সমস্যা মেটাতে বিদ্যুৎ বন্টন কোম্পানির আধিকারিকদের কাছে জানানো হয়েছিল কিন্তু কোনো কাজ হয়নি। বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে আচমকা বিদ্যুৎহীন  হয়ে পড়ে গোটা গ্রাম। ফের জানানো হয় বিদ্যুৎ বন্টন কোম্পানিকে। কিন্তু বিদ্যুৎবন্টন কোম্পানির কোনও কর্মী এসে এই সমস্যা মেটানোর চেষ্টা করেননি। বাধ্য হয়েই এদিন সকাল সাড়ে আটটা থেকে গ্রামবাসীরা মিলে মিলকি বাসস্ট্যান্ডে পথ অবরোধ করতে বাধ্য হয়। এদিকে মিলকি বাসস্ট্যান্ডে অবরোধের জেরে মালদা থেকে মানিকচক ভায়া চাঁচলগামী অসংখ্য যানবাহন রাস্তার দু’ধারে আটকে পড়ে। ফলে দুর্ভোগে পড়েন এই রুটের অসংখ্য যাত্রী। প্রথমে মিলকি  ফাঁড়ির পুলিশকর্মীরা এসে রাস্তা অবরোধ তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু বিদ্যুৎ বন্টন কোম্পানি ও ব্লক প্রশাসনের কোনো কর্তা না এলে অবরোধ তোলা হবে না বলে জানিয়ে দেয় আন্দোলনকারীরা। বেলা ১১ টা নাগাদ ব্লক প্রশাসন, মিলকি পুলিশ ফাঁড়ির আধিকারিক ও কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আন্দোলনকারীদের সঙ্গে আলোচনা করে সাড়ে এগারোটা নাগাদ পথ অবরোধ তুলে দেয়। এদিকে ঘটনার পরই বিদ্যুৎবন্টন কোম্পানির মোবাইল ভ্যান গ্রামে ঢুকে বিদ্যুৎ  পরিসেবা স্বাভাবিক করার উদ্যোগ নেয়।