কড়া নিরাপত্তার মধ্যে বিখ্যাত সুফি সাধক হাফেজ রিয়াজুদ্দিন -এর ৫০ তম উরুষ উৎসব পালিত হল কালিয়াচকের উত্তর দারিয়াপুর গ্রামে

জুলফিকার আলি – কড়া নিরাপত্তার মধ্যে বিখ্যাত সুফি সাধক হাফেজ রিয়াজুদ্দিন -এর ৫০ তম উরুষ উৎসব পালিত হল কালিয়াচকের উত্তর দারিয়াপুর গ্রামে। লক্ষাধিক মানুষের উপস্থিতিতে চলে চাদর চড়ানো, সিন্নি বিতরণ ও ধর্মীয় আলোচনা সভা।
মালদহ জেলার কালিয়াচক থানার উত্তর দারিয়াপুর গ্রামে প্রায় ১০০ বছর আগে ধর্ম প্রচার করতে সুদুর উত্তরপ্রদেশের আজমগড় থেকে আসেন সুফি সাধক হাফেজ রিয়াজুদ্দিন। তৎকালিন ব্রিটিশ শাসন কালে কালিয়াচক তথা উত্তর দারিয়াপুর এলাকায় ধর্মীয় জ্ঞানহীন মানুষজনকে শিক্ষা দিতে শুরু করেন। আস্তে আস্তে কালিয়াচকের বিভিন্ন গ্রামে হাফেজ রিয়াজুদ্দিন জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। সমাজ সেবা ও ধর্মীয় শিক্ষাদানের মাধ্যমে এলাকাবাসীর মন জয় করে নেন তিনি। প্রত্যেক দিন হিন্দু-মুসলিম সব সম্প্রদায়ের মানুষ হাফেজের দরবারে আসতেন। সমাজে অশিক্ষা ও কুসংস্কার দূর করতে তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করেন। এলাকায় একটি সুষ্ট সমাজ প্রতিষ্ঠা করেন। উত্তর দারিয়াপুরের নিরক্ষর যুব সমাজকে মসজিদমুখী করে শিক্ষাদানে ব্যবস্থা করেন। এভাবেই দারিয়াপুর ও আশে পাশের গ্রামের মানুষের মুশকিল আসানরূপে আর্বিভাব চিরস্বরনীয় হয়ে আছেন। ১৯৬১ সালে রমজান মাসের ১৪ তারিখে সুফি সাধক হাফেজ রিয়াজুদ্দিন ইন্তেকাল করেন। সেই বছর থেকেই শুরু হয় উরুষ উৎসব। রমজান মাসের ১৪ তারিখ উৎসব পালিত হয়। মাজারের চাদর চড়ানো, কোরান পাঠ, ধর্মীয় আলোচনা, খিচুড়ী বিতরণ সহ একাধিক কর্মসূচী পালন করা হয়। এবছর দুই দিন ধরে উরুষ উৎসব পালন করা হয়। গত রবিবার ও সোমবার অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়। মূল অনুষ্ঠানটি সোমবার হয়। সেই অনুষ্ঠানকে ঘিরে প্রায় লক্ষাধিক মানুষের সমাবেশ হয়। গোটা এলাকায় শান্তি শৃঙ্খলা বজায় রাখতে ব্যপক ব্যবস্থা গ্রহণ করে কালিয়াচক থানা পুলিশ। পুলিশের ভূমিকায় খুবই খুশি দারিয়াপুরবাসী।লক্ষাধিক মানুষের সমাবেশকে সুষ্ঠভাবে পরিচালনা করে পুলিশ সুনাম অর্জন করেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *